গুরুদেব সিয়াগ সিদ্ধ যোগে আপনাকে স্বাগতম

  • সিদ্ধ যোগ দুটি শব্দের সমন্বয় । সিদ্ধ কথার অর্থ শক্তিপ্রদত্ত ও আলোকপ্রাপ্ত এবং যোগ কথার অর্থ পরমসত্তার সাথে একত্বীকরন । সিদ্ধ যোগ এমন একটি যোগমার্গ যেখানে আলোকপ্রাপ্ত গুরুর কৃপার মাধ্যমে পরমসত্তার সাথে একত্বীকরন সম্ভব ।

  • আলোকপ্রাপ্ত গুরুদেব শ্রী রাম লাল জী সিয়াগ গায়ত্রী সিদ্ধি(ঈশ্বরের নির্গুন নিরাকার স্বরুপ) ও কৃষ্ণ সিদ্ধির(ঈশ্বরের স্বগুন স্বাকার স্বরুপ) অধিকারী । এই দুই প্রকার সিদ্ধির কারনে গুরুদেব শক্তিপাত দীহ্মার মাধ্যমে একটি পবিত্র মন্ত্রের দ্বারা কুন্ডলিনী (দেহের পবিত্র মাতৃশক্তি) জাগরনে সমর্থ্য ।

  • জাগ্রত কুন্ডলিনী সাধকের দেহে বিভিন্ন প্রকার আসন , বন্ধ , প্রানায়াম , মুদ্রা স্বয়ংক্রিয়ভাবে করাতে থাকে এবং সাধককে ধ্যানে নিয়ে‌ যায় । সাধকের শারীরিক ও মানসিক প্রয়োজন অনুযায়ী এই যৌগিক ক্রিয়া হয় তাই সকলের নিজস্ব প্রয়োজন অনুযায়ী যৌগিক ক্রিয়া হয় ।

  • তাই এই যৌগিক ক্রিয়া গুলি শারীরিক এবং মানসিক শুদ্ধিকরণ এবং বিভিন্ন প্রকার আসক্তি থেকে মুক্ত করে সাধককে উচ্চতর আধ্যাত্বিক যাত্রার জন্য উপযুক্ত করে তোলে ।

এই আধ্যাত্মিক শক্তি কেবলমাত্র গুরুদেবের আওয়াজ হতে প্রাপ্ত মন্ত্রেই বিরাজমান ।
  • সিদ্ধ যোগে দীক্ষিত হয়ে ধ্যান করবার জন্য প্রথমে গুরুদেবের আওয়াজে সঞ্জীবনী মন্ত্র শোনা আবশ্যক ।

  • নিজের দৈনন্দিন কাজ কর্ম সম্পাদন করবার সঙ্গে সঙ্গে সকালে ও বিকেলে খালি পেটে ধ্যান করা আবশ্যক ।

  • 1.

    সিদ্ধ যোগ সাধনার দুটি অংশ, একটি হলো মন্ত্র জাপ এবং আরেকটি হলো ধ্যান ।

  • 2.

    প্রথমে ইচ্ছানুসারে যে কোন আরামদায়ক আসনে বসুন, বসতে অক্ষম হলে শুয়েও করতে পারেন ।

  • 3.

    গুরুদেবের যেকোনো চিত্র দুই মিনিট ধরে দর্শন করুন ।

  • 4.

    এবার চোখ বন্ধ করে গুরুদেবের চিত্র আজ্ঞা চক্রে (কপালের যে অংশে টিপ বা তিলক লাগানো হয়) দেখবার চেষ্টা করুন ও গুরুদেবকে প্রার্থনা করুন 15 মিনিট ধ্যানে নিয়ে যাওয়ার জন্য ।

  • 5.

    আজ্ঞা চক্রে গুরুদেবের চিত্রে সম্পূর্ণভাবে ধ্যান কেন্দ্রিত করে, মুখ ও জিভ না নড়িয়ে গুরুদেবের সঞ্জীবনী মন্ত্রের মানসিক জপ করুন ।

  • 6.

    ধ্যানের মধ্যে যদি কোন যৌগিক ক্রিয়া হয় তাহলে ভয় পাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই, ধ্যানের জন্য চাওয়া সময় অতিবাহিত হওয়ার পর যৌগিক ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যাবে ।

  • 7.

    সকালে ও সন্ধ্যায় ইচ্ছানুসারে খালি পেটে 15 মিনিট করুন ।

মনে রাখবার বিষয় । (Points to Remember):

  • আপনি নিজের দৈনন্দিন যে কোন কাজকর্ম করবার সময় মানসিকভাবে এই সঞ্জীবনী মন্ত্র জপ করতে পারেন। মন্ত্র জপই হলো সাধনায় অগ্রগতির চাবিকাঠি ।

  • আপনি যে ধর্ম বা পন্থার সঙ্গে যুক্ত সেটাকে ছাড়বার কোন প্রয়োজন নেই, সেটার সাথেই গুরুদেবের প্রদত্ত এই ধ্যানের বিধি অভ্যেস করতে পারেন ।

  • আপনার এক নিষ্ঠা ও একাগ্রতাই হলো সাধনায় অগ্রগতির সহায়ক ।

  • আপনার জীবন যাপন বা খাবার-দাবারের কোন ধরনের কোনো পরিবর্তনের প্রয়োজন নেই ।

সঞ্জীবনী মন্ত্র কিভাবে পাবেন । (Get the Sanjeevani Mantra)

দয়াকরে শুধুমাত্র গুরুদেব কন্ঠে রেকর্ড করা ভিডিও প্লে করে সঞ্জীবনী মন্ত্র প্রাপ্ত করুন ।

দয়াকরে শুধুমাত্র গুরুদেব কন্ঠে রেকর্ড করা ভিডিও প্লে করে সঞ্জীবনী মন্ত্র প্রাপ্ত করুন ।

Image Description

সিদ্ধ যোগের লাভ । (Benefits of Siddha Yoga):

  • সমস্ত রকম শারীরিক ও মানসিক দুরারোগ্য রোগ হতে নিবৃত্তি যেমন এইডস , ক্যান্সার , মানসিক রোগ ও মানসিক চিন্তা ইত্যাদি ।

  • কোনরকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই যেকোনো ধরনের নেশা থেকে মুক্তি ।

  • মনোসংযোগ বৃদ্ধির ও স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি ।

  • মানসিক শান্তি ও মানসিক আনন্দ প্রাপ্তি ।

  • আধ্যাত্বিক জাগরণ ও মুক্তি বা মোক্ষ প্রাপ্তি ।

Share

Latest Updates

Receive our Latest Updates directly in your mailbox.